পাঞ্জাবের বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থাপনের উদ্যোগ

ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যে অবস্থিত সে দেশের অন্যতম বৃহৎ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ‘লাভলি প্রোফেশনাল ইউনিভার্সিটি’-তে বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থাপিত হতে যাচ্ছে। ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোহাম্মদ ইমরানের পাঞ্জাব সফরকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর শ্রী অশোক মিত্তালের সাথে এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে, এটি একটি পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার ব্যাপারেও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সম্মতি জানিয়েছেন।

ছয়শত একর জমির উপর অবস্থিত ‘লাভলি প্রোফেশনাল ইউনিভার্সিটি’-তে ৫০-এর অধিক দেশের তিন সহস্রাধিক বিদেশীসহ প্রায় ৩৫ হাজার ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনা করে। বিশ্ববিদ্যালয়টি ক্রীড়াক্ষেত্রেও অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। ভারতীয় অলিম্পিক হকি দলের ০৭ জন খেলোয়াড়সহ টোকিওতে অনুষ্ঠানরত অলিম্পিক গেমসের ভারতীয় দলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশের প্রায় সাড়ে সাতশত ছাত্র-ছাত্রী অধ্যয়নরত। যা বিদেশে কোন একক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সর্বোচ্চ সংখ্যা। বিশ্ববিদ্যালয়ে সফরকালে হাইকমিশনার মোহাম্মদ ইমরান সেখানে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের সাথেও মতবিনিময় করেন।

 

বঙ্গবন্ধু কর্নারে জাতির পিতার পূর্ণাঙ্গ প্রতিকৃতি, বঙ্গবন্ধু রচিত ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ‘কারাগারের রোজনামচা’সহ বাংলাদেশের ইতিহাস, সংস্কৃতি ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সংক্রান্ত বিভিন্ন বইপত্র ও সাময়িকী রাখা হবে। এর পাশাপাশি অডিও-ভিজ্যুয়াল মাধ্যমে তথ্য প্রদানের ব্যবস্থাও থাকবে।

‘লাভলি প্রোফেশনাল ইউনিভার্সিটি’-তে বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থাপিত হলে তা বঙ্গবন্ধুর জীবন, কর্ম ও আদর্শ ছাড়াও বাংলাদেশ নিয়ে যাবতীয় তথ্যাদি ভারতসহ বিভিন্ন দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের নিকট তুলে ধরা সম্ভব হবে। পর্যায়ক্রমে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে সরকারি/বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু কেন্দ্র স্থাপনের জন্য নয়াদিল্লীস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *